হরগৌরী পাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটক এর রিভিউ

প্রিয় পাঠক ভাই ও বোনেরা আজকে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব হরগৌরী পাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটকের রিভিউ সম্পর্কে। আপনারা যারা হরগৌরী পাইস হোটেল এর দশক আছেন তারা হয়তো জানেন না হরগৌরী পাইস হোটেল এর সম্পর্কে। 

আজকে আমি আপনাদের সামনে হরগৌরী পাইস হোটেল এর বিস্তারিত আলোচনা করব, এই নাটকটি কি নিয়ে কাহিনীটি লেখা হয়েছে এ বিষয়ে আলোচনা করব। হরগৌরী পাইস হোটেল এই নাটকের অভিনেত্রী অভিনয় কারা করেছে এটা আপনাদের জানিয়ে দেব। 

আপনারা হরগৌরী পাইস হোটেল এ নাটকটি দেখেন কিন্তু এর বিস্তারিত সম্পর্কে অবগত নয়, তাই আজকে আমি আপনাদের হরগৌরী পাইস হোটেল নাটক সম্পর্কে জানাবো। আশা করি আপনাদের হরগৌরী পাইস হোটেল এর রিভিউ সম্পর্কে জেনে ভালো লাগবে। 

কেননা হরগৌরী পাইস হোটেল নাটকের রিভিউ জানার পরে আপনারা হরগৌরী পাইস হোটেলের যে দর্শক আছেন তাদের অবশ্যই নাটকটি দেখে ভালো লাগবে। তাই আজকে আমি হরগৌরী প্রাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটক এর রিভিউ সম্পর্কে আলোচনা করব। তাহলে চলুন শুরু করা যাক হরগৌরী পাইস হোটেল এর রিভিউ সম্পর্কে। 

হরগৌরী পাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটক এর রিভিউ

যীশু এবং নীলাঞ্জনা টলিপাড়ার অন্যতম চলচ্চিত্র জুটি, প্রযোজক হিসেবে আরও নতুন করে পথ চলা শুরু করলেন দুজনে। নতুন ধারাবাহিক হরগৌরী পাইস হোটেল বড় বড় থাম পুরনো দিনের করি বর্গা দেয়া বাড়ির উঠোনে শাড়ি পেতে রাখা বেঞ্চ সামনে টেবিল বোঝাই করা লুচি, ছোলার ডাল, পাঁঠার মাংস, মিষ্টি আরো কত কি। 

শঙ্করের স্বপ্ন এই হরগৌরী পাইস হোটেল সারাটা দিন এই হোটেল সামলাতেই কেটে যায়, তার স্ত্রী পৃথিবী আবার সম্পূর্ণ আলাদা। আলাদা জগতের মানুষ, যখন এক হয় তখন তাদের পৃথিবীটা ঠিক কিভাবে সাজানো হয়। এমনই এক প্রেমের গল্প নিয়ে যীশু সেনগুপ্ত এবং নীলাঞ্জনা সেনগুপ্ত অভিনীত নতুন ধারাবাহিক হরগৌরী পাইস হোটেল। 

বেশ অনেক বছর পর আবারও কাজে ফিরছেন নীলাঞ্জনা সঙ্গী অবশ্যই যীশু সারাদেশ জুড়ে এখন তার প্রতিপত্তি টালিগঞ্জের এন্টি ওয়ান স্টুডিয়োয় ধরা দিলেন। পুরনো যীশু ফিরে গেলেন নিজের পুরনো দিনগুলো পাত পেড়ে খাওয়া দাওয়া ব্যবস্থাও হয়েছিল। এক দিকে আবারো নিজেদের প্রযোজনা সংস্থা শুরু করার উত্তেজনা সঙ্গে স্টার জলসার ১৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে আলোর রোশনাইয়ে সেজে উঠেছিল স্টুডিওর চার নম্বর ফ্লোর। 

হরগৌরী পাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটক এর রিভিউ

এই শঙ্কর ঐশানি তাদের জীবনের গল্প আর এই যে শঙ্কররের বাড়ি তা যেন যীশুর ঢাকুরিয়ার পৈতৃক ভিটে। অভিনেতা বললেন এই গল্পটা আমার আর নীলাঞ্জনারই আমিই এই শঙ্কর যে কলকাতার ছাপোষা বাড়িতে বড় হয়েছে। অন্যদিকে নীলাঞ্জনা মুম্বাইয়ে বড় হওয়া পাশ্চাত্য শিক্ষায় বড় হওয়া মেয়ে, এই গল্পের মধ্যে যেন নিজেদেরই খুঁজে পাচ্ছি। 

নতুন ধারাবাহিকে কি যিশুকে দেখা যাবে সেই উত্তর যদি ও এখনো পাওয়া যায়নি, তবে প্রশ্ন পুরো পুরি উড়িয়ে না দিয়ে অভিনেতা জানালেন অবিশ্বাস্য যে কোনও কিছু যে কোন সময় ঘটে যেতে পারে। 

নীলাঞ্জনার কথায় আমার জীবনের শংকর যীশু ও স্ত্রীর কথা রেশ ধরেই বললেন আমি আর নীলাঞ্জনা এইরকম হরগৌরী পাইস হোটেলে খাবার খেয়ে দীর্ঘ কয়েকটা মাস কাটিয়েছি। শুরুর দিকে সেই দিন গুলো বারবার মনে পড়ে যাচ্ছে আমার নতুন ধারাবাহিকের হাত ধরে দর্শক পেতে চলেছে নতুন জুটি।  রাহুল মজুমদার এবং সুভাষ মুখোপাধ্যায় রাহুলকে আগে খুকুমণি হোম ডেলিভারি ধারাবাহিকে দেখেছে দর্শক, এই নতুন জুটি দর্শকমনে কতটা প্রভাব ফেলবে সেটাই দেখার বিষয়। 

হরগৌরী পাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটক এর রিভিউ

প্রিয় দর্শক হরগৌরী পাইস হোটেল এ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা আজকে এতোটুকু, আশা করি আপনাদের হরগৌরী পাইস হোটেল নিয়ে যে রিভিউটি করা হয়েছে সেটি আপনাদের ভাল লেগেছে।  কেননা এটি জীবনের একটি গল্প নিয়ে লেখা এবং এই গল্পটি দুজনের প্রেম ভালোবাসা এ সম্পর্কে দেখানো হয়। 

তাই আপনারা যারা হরগৌরী পাইস হোটেল এই সিরিয়াল টি দেখবেন আশা করি আপনাদের নিজেদের জীবনের পুরনো দিনের কিছু কথা মনে পড়বে। তাই আপনারা যারা হরগৌরী প্রাইস হোটেল এই সম্পর্কে জেনেছেন তারা অবশ্যই এবার নাটকটি দেখে ভালো লাগবে। তাহলে হরগৌরী পাইস হোটেল বাংলা সিরিয়াল নাটক এর রিভিউ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা আজকের মতো এতোটুকুই, সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন

যোগাযোগ ফর্ম