লালকুঠির বাংলা সিরিয়াল এর রিভিউ সম্পর্কে

প্রিয় পাঠক ভাই ও বোনেরা আজকে আমি আলোচনা করব লালকুঠি সিরিয়াল নাটকের রিভিউ সম্পর্কে।  আপনারা যারা জি বাংলার দর্শক আছেন তারা হয়তো লালকুঠি নাটকটি দেখে থাকেন, তাই অনেকেই হয়তো এ লালকুঠির নাটকের বিষয়ে অনেক কিছুই জানেন না। 

কিন্তু আজকে আমি আপনাদেরকে জানিয়ে দেবো লালকুঠি নাটকের সম্পর্কে, তাই আপনারা যারা লালকুঠি নাটকটি দেখেন এবং এটির ভক্ত আছেন তারা অবশ্যই আমার এই আর্টিকেলটি পড়ে বুঝতে পারবেন লালকুঠির সম্পর্কে। লালকুঠির নাটক সম্পর্কে জানতে হলে আমার এই পোস্টটি পুরোটা পড়তে হবে, তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক আপনাদের জনপ্রিয় বাংলা সিরিয়াল নাটক সম্পর্কে। 

লালকুঠির বাংলা সিরিয়াল এর রিভিউ সম্পর্কে


লালকুঠি মাত্র ছয় মাসেই ছন্দপতন

একের পর এক ধারাবাহিক বন্ধের খবর মাত্র ছয় মাসেই বন্ধ হতে চলেছে ধারাবাহিক লালকুঠি, কবে হবে শেষ দিনের শুটিং। পর এবার লালকুঠুরি স্টুডিও পাড়ায় নতুন গুঞ্জন ছড়িয়েছে, বন্ধ হতে চলেছে লালকুঠি, শাশুড়ি বৌমার ঝগড়া নয় প্রেমের রহস্য রোমাঞ্চ সেলফি তুলে ধরার চেষ্টা করেছিল জি বাংলার নাটক লালকুঠি। 

কিন্তু তাও ছয় মাসের মধ্যেই শেষ হয়ে যাওয়ার গুঞ্জন উঠেছে এই কয়েক মাসেই অনেক ধারাবাহিক বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এবার সেই তালিকায় জুড়তে চলেছে লালকুঠির নামক, ধারাবাহিক সিরিয়াল অনেকগুলি ধারাবাহিক বন্ধ হওয়ার খবর এসেছে। তবে দেশের মাটি ধারাবাহিক এরপর থেকে রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রুকমা রায়ের জুটি দর্শক মনে উত্তেজনা তৈরি করেছিল। 

কিন্তু রসায়নের জনক অবশ্যই এই ধারাবাহিক কেউ দেখেছেন, সবাই তাহলে কবে হবে শেষ পর্বের সম্প্রচার প্রযোজনা সংস্থার তরফ জানা গিয়েছে। এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি, কোন কিছুই হয়নি তাই আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো সম্ভব নয়। তবে ইতিমধ্যেই জি বাংলা আসতে চলেছে বেশকিছু নতুন ধারাবাহিক খুব তাড়াতাড়ি দেখা যাবে রুবেল দাস পল্লবী শর্মা জুটির নিম ফুলের মধু। 

এছাড়াও প্রথমবার দর্শক দেখতে চলেছেন হানি বাফনা এবং সেবা ভট্টাচার্যের জুটি শোনা যাচ্ছে জি বাংলার হাত ধরেই আবারো ছোটপর্দায় ফিরবেন সত্যিকারের খোঁজ চলছে নতুন নায়কের। 

নাটকের অভিনয় অভিনেত্রী পরিচালক কারা

চিত্রনাট্য সংলাপ, আনন্দ পায়, কাকলি- শীর্ষ -সঙ্গীত, শমীক মুখার্জি, আবহাওয়া আশীষ, চিত্রগ্রহণ অশোক চক্রবর্তী, শব্দগ্রহণ রঞ্জন রায়, পোশাক পরিকল্পনা সন্দ্বীপ, পোস্ট প্রোডাকশন পরিচালনা সম্প্রদান দীপায়ন সত্ত মাইতি, সিজন মনিমালা পাল, কার্যনির্বাহী প্রযোজনা সিনহা পিল কি, শিল্প নির্দেশনা আনন্দ আড্ডা, পরিচালনা পার্থ দে প্রমো অতনু, গ্রাফিক্স স্বতন্ত্র রিদম, কার্যনির্বাহী প্রযোজনা শ্রাবণী ঘোষ অনিরুদ্ধ ঘোষ, শ্রেয়া প্রযোজনা সুরিন্দর সিং নিসপাল সিং। 

পাঠক ভাই ও বোনেরা লালকুঠি নাটক সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা আজকের মতো এতোটুকুই ছিলো।  আশা করব আপনারা যারা লালকুঠির এ নাটকের দর্শক আছেন এবং জি বাংলার দর্শক আছেন তারা অবশ্যই এই নাটকের সম্পর্কে জানার পরে অবশ্যই কিছুটা হলেও ভালো লেগেছে। 

আর যারা এই নাটকের দর্শক আছেন তাদের জন্য হয়তো একটি দুঃসংবাদ হয় দাঁড়িয়েছে, কেননা নাটকটি হয়তো যেকোনো সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কিন্তু এখানে ভাবার কিছুই নেই একটি নাটক গেলে হয়তো আবার এ জায়গা পূরণ করার জন্য আরেকটি ভালো কোন সিরিয়াল নিয়ে আসবে। 

তাই আপনারা মন খারাপ না করে সিরিয়াল গুলো উপভোগ করুন তার সাথে সাথে অবশ্যই যেকোনো সিরিয়াল দেখতে হলে আগে তার বিষয় ভাল করে জানুন। নাটকটি আসলে কোন বিষয়ের উপরে করা, হয়েছে তাহলে সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন অন্য আরেকদিন অন্য কোন নাটকের রিভিউ নিয়ে আপনাদের সামনে আবার হাজির হব। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন

যোগাযোগ ফর্ম